বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪ ইং
  • প্রচ্ছদ

  • বাংলাদেশ

  • রাজনীতি

  • বিশ্ব

  • বাণিজ্য

  • মতামত

  • খেলা

  • বিনোদন

  • চাকরি

  • জীবনযাপন

  • শিক্ষা

  • প্রযুক্তি

  • গ্যাজেটস

  • সড়ক দুর্ঘটনা

  • ধর্ম

  • আইন আদালত

  • জাতীয়

  • নারী

  • সশস্ত্র বাহিনী

  • গণমাধ্যম

  • কৃষি

  • সাহিত্য পাতা

  • মুক্তিযুদ্ধ

  • আইন শৃঙ্খলা

  • আইন শৃঙ্খলা

  • খেলা

    প্রধানমন্ত্রীকে না বলা যায় না - তামিম, সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে খেলায় ফিরছেন

    স্পোর্টস ডেস্ক থেকে
    প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০২৩ ইং
          250
    ছবি: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে তামিম ইকবাল ও তার স্ত্রীর সেলফি তুলছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা
      Print News

    স্পোর্টস ডেস্ক:



     গত বৃহস্পতিবার ৬ জুলাই সংবাদ সম্মেলন করে কান্নাজড়িত কন্ঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষনা দিয়েছিলেন বাংলাদেশের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল। গতকাল শুক্রবার ৭ জুলাই বিকেলে গণভবনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করার পর অবসর প্রত্যাহার করে নিলেন তামিম। 

    প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর সরকারী বাসবভন গণভবনে  বৈঠককালে  তামিমের সাথে তার স্ত্রী,বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা উপস্থিত ছিলেন। 

    চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ। আফগানদের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের পরের দিন, বৃহস্পতিবার তাড়াহুড়া করে সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে নিজের অবসরের কথা জানান তামিম। ১৩ মিনিটের সাংবাদিক সম্মেলনে তামিম বলেন, ‘গতকাল (বুধবার) আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটিই আমার শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। এই মুহূর্তেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিচ্ছি।’

    তামিমের এমন সিদ্বান্তে অনেকটা  হতাশা নেমে আসে  দেশের ক্রিকেটাঙ্গনে। নিজের সিদ্বান্ত থেকে তামিমকে সরে আসার জন্য অনুরোধ করেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। কিন্তু কোন কিছুতেই কাজ হচ্ছিলো না। এমনকি তামিমের সাথে কথা বলার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন বিসিবি বস। শেষ পর্যন্ত  অবসর নিয়ে কথা বলতে শেখ হাসিনার সাথে দেখা করতে গণভবনে যান তামিম। 


    প্রধানমন্ত্রীর সাথে বৈঠক শেষে বেরিয়ে এসে গতকাল সন্ধ্যায় গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেন ভিন্ন এক তামিম। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীকে আমাকে খেলায় ফিরতে বলেছেন। আমি আমার অবসরের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছি।  

    তামিম বলেন, ‘আজ বিকেলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে তার বাসভবনে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলোচনার পর তিনি আমাকে ক্রিকেটে ফেরার নির্দেশ দেন তিনি। আমি আমার অবসরের  স্দ্ধিান্ত  প্রত্যাহার করছি।’

    তামিম আরও বলেন, ‘আমি যে কাউকেই না বলতে পারি, কিন্তু দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিকে না বলা অসম্ভব। পাপন ভাই যখন এখানে ছিলেন তখন মাশরাফি ভাই আমাকে ফোন করেছিলেন। তারাই এখানে বড় ফ্যাক্টর ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী আমাকে দেড় মাসের বিরতি দিয়েছেন। আমি আমার চিকিৎসা সম্পন্ন করবো এবং আবারও ক্রিকেটে ফিরে আসবো।’

    বিসিবি প্রধান পাপন বলেন, তিনি জানতেন এটি সমাধানের উপায় আছে। তামিমের সাথে বসতে পেরে এবং তার সিদ্বান্ত পরিবর্তনে রাজি করাতে পেরে স্বস্তি পেয়েছেন। 

    পাপন বলেন, ‘বৃহস্পতিবার তার সংবাদ সম্মেলন দেখে আমার মনে হয়েছে, আবেগপ্রবণ হয়ে সিদ্বান্ত নিয়েছিলেন তামিম। আমি জানতাম, আমরা যদি একত্রে বসতে পারি, আমি সমাধান খুঁজে পাবো।’

    তিনি আরও বলেন, ‘আমরা প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে তার সাথে বসেছিলাম এবং সে শুধু জানিয়েছে অবসরের চিঠি প্রত্যাহার করছেন। অবসর নেননি তিনি। পুনর্বাসন প্রক্রিয়া  এবং শারীরিক ও মানসিকভাবে প্রস্তুত হতে ছয় সপ্তাহের বিরতি নিয়েছেন। খুব শীঘ্রই ক্রিকেটে ফিরবেন তিনি।’

    তামিমের সিদ্বান্ত পরিবর্তনে স্বস্তি পেয়েছেন কিনা জানতে চাইলে, পাপন বলেন, ‘অবশ্যই আমরা স্বস্তি পেয়েছি। আমাদের অধিনায়ককে ছাড়া আমরা কিভাবে খেলবো?’

    প্রথম ম্যাচ খেললেও আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের বাকী দু’ম্যাচে খেলবেন না তামিম। প্রথম ম্যাচে বৃষ্টি আইনে ১৭ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। ৮ ও ১১ জুলাই বাকি দুই ম্যাচের জন্য অধিনায়কের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে লিটন দাসকে। তামিমের জায়গায় দলে নেয়া হয়েছে রনি তালুকদারকে।

    সূত্র-বাসস 

    আপনার মন্তব্য লিখুন
    Total Visitors : 540122

    সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ শাহিদ আজিজ

            ৪৪৮ বাউনিয়া,তুরাগ,ওয়ার্ড নং ৫২

            ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ঢাকা থেকে প্রচারিত এবং প্রকাশিত।

            যোগাযোগ -০১৭৯৫২৫২১৪২

            ইমেইল -shahidazizmoonna@gmail.com