রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইং         ০১:১৬ পূর্বাহ্ন
  • মেনু নির্বাচন করুন

    জামায়াতে ইসলামীর ত্রাণ বিতরণে প্রধান অতিথি কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক


    প্রকাশিতঃ 18 Jul 2022 ইং
    ভিউ- 1597
    শেয়ার করুনঃ

    স্টাফ রিপোর্টারঃ


    জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ এর ত্রান বিতরণ এ  প্রধান অতিথি কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামিলীগ এর সাধারণ সম্পাদক, অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম। বিগত ০৯/০৭/২০২২ ইং তারিখে কানাইঘাট উপজেলার  ইউনিক কমিউনিটি সেন্টার এবং সুনামগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য সকলের সাথে ত্রান বিতরণ তৎপরতায় অংশগ্রহণ করে নিবন্ধন বাতিল দল জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ তারই ধারাবাহিকতায় তারা দেশের বিভিন্ন জায়গায় নিজেদের অস্তিত্বের জানান দেয় জামায়াতে ইসলামী সেই সাথে তাদের রাজনৈতিক পরিক্রমার কৌশল অংশ অব্যাহত রাখতে ভিন্নতা অবলম্বন করে সেই সাথে স্থানীয় আওয়ামিলীগ নেতাদের গোপনে লিয়াজো কিংবা আঁতাত থাকলেও প্রকাশ্যে আওয়ামিলীগ নেতাদের অংশগ্রহণ এই প্রথম।

    বিতর্কিত ভুমিকায় থাকা এক সময়ের আদম ব্যবসায়ী প্রিন্সিপাল সিরাজুল ইসলাম এর আগে বিভিন্ন দল করতেন বলে জানা গেছে। তিনি প্রথমে জাসদ পরে বি এন পি, জাতীয় পার্টির রাজনীতি করেছেন বলেও অনেক তৃণমূল ত্যাগী নিবেদিত আওয়ামিলীগ এর অনেক নেতার কাছে জানা গেছে। পরবর্তীতে তিনি ক্ষমতার লোভে আওয়ামিলীগ এ যোগ দিয়ে সিন্ডিকেট নেতাদের ভাগিয়ে গত কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামিলীগ এর সম্মেলনে বনে যান কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামিলীগ এর সাধারণ সম্পাদক। এটা নিয়ে অনেক অনলাইন এবং প্রিন্ট মিডিয়ায় বিভিন্ন জায়গায় সংবাদ প্রকাশ এবং প্রচার হয়। বিশেষত সম্পাদক.কম নামক স্থানীয় পোর্টালে রাজাকার পরিবারের সন্তান বলে সংবাদ প্রচার হলে সাথে সাথে তিনি প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেন। পরে উক্ত বিষয়টি নিয়ে আর তেমন একটা মন্তব্য দেখা যায়নি। এবং তিনি নিজেকে একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে নিজেকে দাবি করে আসছেন অনেকেরই এটা নিয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মন্তব্য প্রকাশ করেতে দেখা যায়। এটাকে নিয়ে স্বয়ং দলের ভেতরে বাহিরে চলছে আলোচনা সমালোচনা, কেউ কেউ বলছেন তিনি বলয় তৈরী করে  জামায়াত সহ বিভিন্ন দলের সাথে আতাত করে বিগত ১ মাস আগে কানাইঘাট উপজেলায় বি এন পি কতৃক আওয়ামিলীগ এবং ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ আছে তাছাড়া আবার ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আওয়ামিলীগ নেতা কর্মীদের উপর বি এন পি নেতাদের করা উল্টো মামলার অভিযোগ আ। তাছাড়া তিনি বিগত উপজেলা এবং ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ আর স্থানীয় নির্বাচনে দলের হাই কমান্ডের আদেশ অমান্য করে বিদ্রোহী  প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সব মিলিয়ে কানাইঘাট উপজেলায় আওয়ামিলীগ অন্যান্য সহযোগী সংগঠন এর সমালোচনা অব্যাহত আছে।


    আপনার মন্তব্য লিখুন
    © 2022 muktir71news.com All Right Reserved.